উপজাতি থেকে পরিপূর্ণ একটি নোট পিডিএফ ডাউনলোড

0
752

উপজাতি থেকে পরিপূর্ণ একটি নোট

বাংলাদেশের উপজাতি

✿ বাংলাদেশে বসবাসকারী উপজাতির সংখ্যা – ৪৫ টি।

✿ সরকারি হিসেবে দেশের মোট ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সংখ্যা – ৪৮ টি।

✿ বাংলাদেশের বৃহত্তম উপজাতি – চাকমা

✿ বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম উপজাতি – সাওতাল।

✿ পার্বত্য চট্টগ্রামে মোট উপজাতি বসবাস করে – ১৩ টি।

✿ বাংলাদেশে উপজাতির ভাষার সংখ্যা – ৩২ টি।

✿ প্রকৃতি পুজারি উপজাতি – মুন্ডা ও মনিপুরী।

✿ উপজাতীয় বর্ষবরণ উৎসবকে সামগ্রিকভাবে বলা হয় – বৈসাবি।

✿ ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান অাইনে যতটি ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী ও শ্রেণির জণগণের উল্লেখ অাছে – ২৭ টি।

✿ উপজাতি, ক্ষুদ্রজাতি সত্তা, নৃগোষ্ঠী ও সম্প্রদায়ের সংস্কৃতির কথা বলা হয়েছে সংবিধানের – ২৩(ক) অনুচ্ছেদে।

✿ লিখিত বর্ণমালা নেই যে উপজাতির – সাওতাল।

✿ মগ উপজাতি পাহাড়ি এলাকায় পরিচিত – মারমা নামে।

✿ মগ উপজাতি সমতল এলাকায় পরিচিত – রাখাইন নামে।

✿ মগদের অাদি নিবাস ছিল – অারাকান।

✿ জলকেলি যাদের উৎসব – রাখাইনদের।

✿ ত্রিপুরাদের ভোজানুষ্ঠানকে বলে -সামৌং

✿ গারোদের ঐতিহ্যবাহী চাষ পদ্ধতি – জুমচাষ।

✿ গারোদের ভাষার স্থানীয় নাম – মান্দি ভাষা।

✿ পাঙনরা যে ভাষায় কথা বলে – মৈ তৈ মণিপুরী ভাষায়।

✿ খিয়াংরা ঈশ্বরকে বলে – হ্নাদাগা।

✿ যে উপজাতির মধ্যে বিবাহ বিচ্ছেদ, বহুবিবাহ ও বিধবা বিবাহ প্রচলন রয়েছে – হাজং।

✿ বাংলাদেশে মোট উপজাতি সংখ্যা – ১৫৮৬১৪১ জন।

✿ বাংলাদেশে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী মোট জনসংখ্যার – ১.১০%

✿ চাকমা ভাষায় লিখিত উপন্যাসের নাম – ফেবো

✿ যে উপজাতি মুসলমান – পাঙন।

✿ উপজাতি বা ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠী গেরিলা সংগঠনের নাম – শান্তি বাহিনী।

✿ শান্তিবাহিনীর বর্তমান চেয়ারম্যান – জোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা।

✿ বাংলাদেশে উপজাতীয় প্রতিষ্ঠান অাছে – ৮টি।

✿ যে দুটি উপজাতির পারিবারিক কাঠামো মাতৃতান্ত্রিক – গারো ও খাসিয়া।

কয়েকটি উপজাতির পরিচয়:

✿ চাকমা :

  • অবস্থান : পার্বত্য চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার।
  • ধর্ম : বৌদ্ধ
  • প্রধান উৎসব : বিজু

✿ সাওতাল :

  • অবস্থান : বৃহত্তর রাজশাহী ও রংপুর
  • ধর্ম : নাই
  • প্রধান উৎসব : সোহরাই
  • দেবতাদের নাম : সিং বোঙ্গা, মারাং বকু, ওরাক, মোরেইকো।

✿ ত্রিপুরা/টিপরা

  • অবস্থান: পাবর্ত্য চট্টগ্রাম, চট্টগ্রাম, নোয়াখালী, কুমিল্লা, ফরিদপুর, ঢাকা।
  • ধর্ম: সনাতন
  • প্রধান উৎসব : বৈসুক
  • দেবতাদের নাম : হিন্দুদের কিছু কিছু দেবতা

✿ রাখাইন :

  • অবস্থান : পার্বত্য চট্টগ্রাম, চট্টগ্রাম, বরগুনা, পটুয়াখালী, কক্সবাজার।
  • ধর্ম : বৌদ্ধ
  • প্রধান উৎসব : সাংগ্রাং

✿ খাসী/খাসিয়া

  • অবস্থান : বৃহত্তর সিলেট
  • ধর্ম : খ্রিষ্টান
  • প্রধান উৎসব : বড়দিন
  • দেবতাদের নাম : উব্লাউ নাংমউ, উব্লাউ মতং, উব্লাউ সংসপাহ, উরিং কেউ, কায়িহ।

✿ গারো :

  • অবস্থান : বৃহত্তর সিলেট ও ময়মনসিংহ বিভাগ, টাঙ্গাইল।
  • ধর্ম : খ্রিষ্টান
  • প্রধান উৎসব : ওয়ানগালা

✿ পাঙন :

  • অবস্থান : মৌলভীবাজার
  • ধর্ম : ইসলাম
  • প্রধান উৎসব : ঈদুল ফিতর ও অাজহা

✿ মণিপুরী

  • অবস্থান : বৃহত্তর সিলেট
  • ধর্ম : বৈষ্ণব
  • প্রধান উৎসব : রাসোৎসব

✿ খিয়াং :

  • অবস্থান : বান্দরবন
  • ধর্ম : বৌদ্ধ
  • প্রধান উৎসব : সাংলান

✿ তঞ্চঙ্গ্যা :

  • অবস্থান: পার্বত্য চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার
  • ধর্ম : বৌদ্ধ
  • প্রধান উৎসব : বিষু

✿ ম্রো:

  • অবস্থান : বান্দরবান
  • ধর্ম : নাই
  • প্রধান উৎসব : ক্লবপাই

✿ ওরাও

  • অবস্থান : বৃহত্তর রাজশাহী
  • ধর্ম : জড়োপাসক
  • প্রধান উৎসব : কারাম

✿ পলিয়া

  • অবস্থান : রংপুর, দিনাজপুর, কুড়িগ্রাম, নীলফামারী
  • ধর্ম : সনাতন
  • প্রধান উৎসব: দূর্গাপূজা

✿ মাহাতো :

  • অবস্থান : বৃহত্তর রাজশাহী ও রংপুর বিভাগ
  • ধর্ম : সনাতন
  • প্রধান উৎসব : সহরায়

✿ রবিদাস:

  • অবস্থান : সিলেট, হবিগঞ্জ, নওগাঁ।
  • ধর্ম : সনাতন
  • প্রধান উৎসব : মাঘীপূর্ণিমা

✿ হাজং

  • অবস্থান : বৃহত্তম ময়মনসিংহ বিভাগ ও সুনামগঞ্জ।
  • ধর্ম : সনাতন
  • দেবতাদের নাম : হিন্দুদের প্রায় সব দেবদবী।

✿ রাজবংশী :

  • অবস্থান : রংপুর, শেরপুর
  • ধর্ম : প্রকৃতি পূজরি

উপজাতিদের জন্য প্রতিষ্ঠিত সাংস্কৃতিক কেন্দ্র :

✿ ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠী সাংস্কৃতিক একাডেমী – বিরিশিরি, নেত্রকোনা।

✿ ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট – রাঙ্গামাটি।

✿ ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট – বান্দরবান।

✿ ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট – খাগড়াছড়ি।

✿ কক্সবাজার সাংস্কৃতিক কেন্দ্র – কক্সবাজার

✿ মণিপুরী ললিতকলা একাডেমি– মৌলভীবাজার

✿ রাখাইন সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট – রামু, কক্সবাজার।

✿ রাজশাহী বিভাগীয় ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর কালচাল একাডেমি – রাজশাহী।

download-pdf

Direct Download 

Click Here

👀 প্রয়োজনীয় মূর্হুতে 🔍খুঁজে পেতে শেয়ার করে রাখুন.! আপনার প্রিয় মানুষটিকে “send as message”এর মাধ্যমে শেয়ার করুন। হয়তো এই গুলো তার অনেক কাজে লাগবে এবং উপকারে আসবে।